গৃহবধূর ম’রদেহ ফেলে রেখে পা’লাল স্বামীসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজন।

গৃহবধূর ম’রদেহ ফেলে রেখে পা’লাল স্বামীসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজন।

বিপ্লবঃ ভোলা সদর উপজেলার তুলাতলি এলাকায় লাইজু আক্তার (১৮) নামে এক গৃহবধূর ম’রদেহ ফেলে রেখে পা’লিয়েছে স্বামীসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজন।

খবর পেয়ে পুলিশ ম’রদেহ উ’দ্ধার করে ময়নাত’দন্তের জন্য ভোলা সদর হাসপাতাল ম’র্গে পাঠিয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। লাইজু সদর উপজেলার ধনিয়া ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের তুলাতলি গ্রামের মো. তানজিলের স্ত্রী ও দৌলতখান উপজেলার চরপাতা ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের মসু শিকদারের কন্যা।

স্থানীয়রা জা্নিয়েছেন, দৌলতখান মহিলা কলেজে দ্বাদশ শ্রেণিতে পড়া অবস্থায় তানজিলের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে লাইজুর। প্রায় দুই মাস আগে তারা পরিবারের মতামত ছাড়াই কোর্ট ও কাজীর মাধ্যমে বিয়ে করেন। তবে তানজিলের পরিবারের লোকজন এ বিয়ে মে’নে নিতে পারেনি। এ নিয়ে বিভিন্ন সময় তাদের মধ্যে কলহ হচ্ছিলো।

তারা আরও জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর তানজিলদের ঘরের দরজা-জানালা খোলা দেখে সন্দেহ হলে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। পরে পুলিশ এসে বিছানায় কম্বল মোড়ানো অবস্থায় গৃ’হবধূ লাইজুর ম’রদেহ দেখতে পায়। এ ব্যাপারে ভোলা মডেল থানার এসআই মো. মোফাজ্জল হোসেন বলেছেন,

রাত ৯টায় খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে বিছানায় কম্বল গায়ে দেয়া অবস্থায় গৃ’হবধূর ম’রদেহ উ’দ্ধার করি। তার মাথা ও গলায় আ’ঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়। নি’হতের স্বামীসহ পরিবারের লোকজন পালিয়েছে। থানার ওসি মো. এনায়েত হোসেন বলেছেন, আমরা ম’রদেহ উ’দ্ধার করেছি। ময়নাতদ’ন্তের জন্য ভোলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদ’ন্তের রি’পোর্টে বোঝা যাবে এটি হ’ত্যা না আ’ত্মহত্যা।

Leave a Comment