প্রকৌশলীকে মা’রধরের অভিযোগ, আ.লীগ নেতাসহ ১৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা।

প্রকৌশলীকে মা’রধরের অভিযোগ, আ.লীগ নেতাসহ ১৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা।

বগুড়ার সোনাতলায় নিম্নমানের কাজের অভিযোগে সড়ক ও জনপথ সওজ বিভাগের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী রাফিউল ইসলামের উপর মা’রধরের অভিযোগ উঠেছে।

গত বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার রেলক্রসিং এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় রাত পৌনে ১০টায় উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ও স্থানীয় ড. এনামুল হক কলেজের অধ্যক্ষ আবদুল মালেক আকন্দসহ ১৮ জনের বি’রুদ্ধে সোনাতলা থানায় মা’মলা করা হয়েছে।

সোনাতলা উপজেলা আওয়ামী লীগে যুগ্ম সম্পাদক এবং ড. এনামুল হক কলেজের অধ্যক্ষ আবদুল মালেক ও তার লোকজন ঘটনাস্থলে এসে কাজের ভুল ধরেন। এসময় পিচ ঢালাইয়ের কাজ বন্ধ করে দেওয়া হয়। এর কিছুক্ষণ পর অধ্যক্ষসহ কয়েকজন সেখানে গিয়ে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করার পর তাকে শারীরিক নি’র্যাতন করেন।

বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানোর পর রাতে সোনাতলা থানায় অধ্যক্ষ মালেকসহ ১০ জনের নাম উল্লেখ করে আরও অজ্ঞাত ৭-৮ জনের বিরুদ্ধে তিনি মামলা করেন। আওয়ামী লীগ নেতা অধ্যক্ষ আবদুল মালেক বলেন, সওজের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী রাফিউল ইসলাম কখনও সাইডে আসেন না।

উপজেলার রেলক্রসিং এলাকায় নিম্নমানের কাজ চালাছেন। এর প্রতিবাদ করলে তিনি প্রকৌশলী অকথ্য ভাষায় গালাগালি করেন। তাকে কেউ মা’রধর করে নি। তিনি আরও বলেন, সাতজন শিক্ষকসহ তার বিরুদ্ধে থানায় মা’মলা করা হয়েছে। এর প্রতিবাদে শনিবার সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়া হবে। বগুড়ার সোনাতলা থানার ওসি বলেন, রাত পৌনে ১০ টার দিকে মা’মলা রেকর্ড করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে অভিযুক্তদের বি’রুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Comment